ধর্ষণকারী জামায়াত নেতা সিলেটে বিচার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে রিকশাচালক কন্যা

জামায়াত নেতা কর্তৃক ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে নিয়ে এখন বিচার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন দরিদ্র রিকশাচালক সুরুজ মিয়া৷ ঘটনার বিচার দাবিতে থানায় গেলেও এজাহার না নিয়ে ওসি অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে৷ এদিকে ধর্ষণকারী সিলেটের রাগীব রাবেয়া কলেজের প্রভাষক ও জামায়াত নেতা বজলুল হক মুরাদ এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে৷

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, সিলেট নগরীর চৌকিদেমি এলাকার সুরুজ মিয়ার পঞ্চম শ্রেণী পড়–য়া ১২ বছরের মেয়েকে ২২ ফেব্রুয়ারি নগরীর ৬ নাম্বার ওয়াের্ডর জামায়াতের আমির বজলুল হক মুরাদ বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে৷ বিষয়টি কাউকে না জানাতে ধির্ষতাকে শাসিয়ে দেয় মুরাদ৷ কিন্তু ধির্ষতা তার বাবা-মাকে জানিয়ে দেয়৷ রিকশাচালক সুরুজ মিয়া তখন এর বিচার চেয়ে বিভিন্ন প্রভাবশালীর দ্বারে দ্বারে ঘুরতে থাকেন৷ এক পর্যায়ে ধির্ষতা অন্তঃসত্ত্বা হলে সে তার সন্তানের পিতৃত্ব দাবি করে বৃহস্পতিবার সিলেট কোতোয়ালি থানায় যায়৷ কিন্তু থানার ওসি ও অন্যরা এজাহার না নিয়ে তার সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন বলে তিনি জানান৷ এ ব্যাপারে থানার ওসি শফিকুর রহমান মুকুল বলেন, তিনি কোনো এজাহারই পাননি৷ এ ব্যাপারে তিনি খোঁজ নেবেন বলে জানান৷ স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনার ফরহাদ চৌধুরী শামীম জানান, এ ঘটনার ব্যাপারে সালিশ হয়েছে, তবে সুরাহা হয়নি৷ মুরাদ একবার ধির্ষতাকে বিয়ে করার ব্যাপারে রাজিও হয়েছিল বলে তিনি জানান৷ রাগীব রাবেয়া কলেজের প্রিন্সিপাল অধ্যাপক ওয়াহিদ বলেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক বজলুল হক মুরাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের যে অভিযোগ এসেছে তা খতিয়ে দেখে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে৷ মুরাদ জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে জড়িত বলে তিনি জানান৷ সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল ডা. সায়েদ আহমদ জানান, মুরাদকে আমি চিনি৷ সে আগে শিবির করতো৷ সে জামায়াতের সঙ্গে যুক্ত নয় বলে তিনি দাবি করেন৷ সূত্রঃ যাযাদি

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: