দেড় যুগেও ভোটাধিকারের দাবি পূরণ হয়নি প্রবাসী সিলেটিদের

দেড় যুগ ধরে দাবি জানালেও সিলেটের ২০ লাখ প্রবাসী এখনো ভোটাধিকার পাননি৷ এ কারণে তাদের মধ্যে ক্ষোভ দানা বাঁধছে৷ নির্বাচন সামনে রেখে তাই ভোটাধিকারের আন্দোলন গড়ে তুলতে চাইছেন তারা৷ এরই মধ্যে তাদের একাধিক সংগঠন সিলেটে সংবাদ সম্মjেনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে৷ এবার বাংলাদেশ সফরে এসে লন্ডনের টাওয়ার হেমলেটসের মেয়র শফিকুল হক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এবং বিরোধী দল আওয়ামী লীগের নেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে প্রবাসীদের ভোটাধিকারের দাবি পূরণের অনুরোধ জানিয়েছেন৷

কর্মসূত্রে বিদেশে অবস্থান করলেও জন্ম ও স্থায়ী ঠিকানাসূত্রে প্রবাসীরা বাংলাদেশের নাগরিক৷ স্বাধীনতার পর প্রবাসীদের নাম ভোটার তালিকায় ছিল৷ কিন্তু ১৯৮২ ও ১৯৯২ সালে অির্ডনান্স জারি করে প্রবাসীদের ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়৷ এ দুটি অির্ডনান্সে বলা হয়, ভোটার তালিকা তৈরির সময় ভোটারদের সশরীরে উপস্থিত থাকতে হবে৷ তবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দূতাবাস, বাংলাদেশ বিমান, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন, ব্যাংক ইত্যাদিতে কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারী বিদেশে অবস্থান করলেও ভোটার তালিকাভুক্ত হতে পারবেন৷ কারাগারে আটক হাজতি এবং কয়েদিদের নামও ভোটার তালিকাভুক্ত করা যাবে৷ শুধু প্রবাসীরাই ভোটার তালিকাভুক্ত হতে পারবেন না৷ সে সময় এ আইনের বিরুদ্ধে দেশ-বিদেশে তীব্র প্রতিক্রিয়া ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়৷ ভোটার তালিকাভুক্ত করার দাবিতে লন্ডন প্রবাসীরা ১৯৯৫ সালের ১৫ থেকে ২০ জানুয়ারি লন্ডনে সোনালী ব্যাংক বয়কট করেন৷ তত্কালীন সরকার আন্দোলনের চাপে প্রবাসীদের পরবর্তী নির্বাচন থেকে ভোটার করার আশ্বাস দেয়৷ সে সময় বিরোধী দলে থাকা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাও বলেছিলেন, ক্ষমতায় গেলে প্রবাসীদের ভোটার তালিকাভুক্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন৷ পরে ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও তিনি সে প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেননি৷ জানা গেছে, প্রবাসীদের ভোটার তালিকাভুক্তির আবেদন জানিয়ে বৃটেন প্রবাসী বাংলাদেশি ভোটাধিকার আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষে আলী রেজা খান ১৯৯৫ সালের ২১ নভেম্বর হাই কোের্ট একটি রিট করেন৷ রিটের শুনানি শেষে বিচারপতি মইনুর রেজা চৌধুরী ও বিচারপতি এমএ রুহুল আমিনকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চ ১৯৯৭ সালের ১২ আগস্ট আবেদনের পক্ষে রায় দেন৷ রায়ে বলা হয়, বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে যারা বিদেশে আছেন এবং বাংলাদেশে যাদের স্থায়ী ঠিকানা রয়েছে তারা ভোটার হতে ও ভোট দিতে পারবেন৷ হাই কোের্টর ওই রায় সত্ত্বেও প্রবাসীদের ভোটার তালিকাভুক্ত করা হয়নি৷ অথচ বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা তাদের দেশে ভোটার হতে এবং বিদেশে বসেই ডাকযোগে ভোট দিতে পারেন৷ গত ফেব্রুয়ারি মাসে প্রবাসীদের সংগঠন বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন ও ওভারসিজ ইউনিয়ন যৌথভাবে প্রবাসীদের ভোটাধিকারের দাবিতে সিলেটে সংবাদ সম্মjেন করে৷ সংবাদ সম্মjেbে দুই শতাধিক প্রবাসী উপস্থিত ছিলেন৷ তারা দাবি না মানা হলে বিমান ও হাই কমিশন বয়কটসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন৷ বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, প্রবাসীদের ভোটার করার পক্ষে আদালত রায় দিয়েছেন; তারপরও কেন প্রবাসীদের ভোটার করা হচ্ছে না তা আমরা বুঝতে পারছি না৷ এ অবস্থায় কঠোর আন্দোলনে যাওয়া ছাড়া আমাদের সামনে আর কোনো পথ খোলা নেই৷ ওভারসিজ ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা ভোট দিতে পারেন৷ এ দেশে বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি চলছে৷ প্রবাসীরা বঞ্চনার শিকার৷ এটি মেনে নেয়া যায় না৷ সূত্রঃ যাযাদি

Advertisements

2 Responses to দেড় যুগেও ভোটাধিকারের দাবি পূরণ হয়নি প্রবাসী সিলেটিদের

  1. রুবন বলেছেন:

    “বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে যারা বিদেশে আছেন এবং বাংলাদেশে যাদের স্থায়ী ঠিকানা রয়েছে তারা ভোটার হতে ও ভোট দিতে পারবেন” হাইকোর্ট-এর এই রায়কে আমি পুরোপুরি সমর্থন করি এবং তাদের ভোটাধিকার দেওয়াই উচিত। শুধু লন্ডনবাসী সিলেটীরাই নয়, পৃথিবীর যে প্রান্তেই বাংলাদেশের পার্সপোর্টধারী ব্যক্তি থাকুক না কেন তাদের ভোটাধিকার অবশ্যই দিতে হবে। তবে দ্বৈত পাসপোর্টধারীদের ক্ষেত্রে কি হবে সে ব্যপারেও সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
    লন্ডনের টাওয়ার হেমলেটসের মেয়র শফিকুল হক সাহেব আমাদের অফিসেও এসেছিলেন। আমি তার সুস্বাস্থ্য কামনা করি।
    আমরা সম্প্রতি বাংলাদেশের সম্পূর্ণ ভোটার তালিকাটি ওয়েবসাইটে দিয়েছি। আসন্ন নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রোফাইল সংগ্রহের কাজও চলছে। ঠিকানা: http://www.shujan.org .

  2. একলিম আহমদ বলেছেন:

    ধন্যবাদ আপনার মন্তব্য ও তথ্যের জন্য। সুজন সত্যিকার অর্থে একটি তথ্যবহুল ও সাহসী পদক্ষেপ।
    শুভ কামনায়,
    একলিম

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: