শাবিতে ভিসির দেখা মিলছে না আজ ও কাল অবস্থান ধর্মঘট, ড. জাফর ইকবালকে নিয়ে পোস্টারিংয়ে ক্ষোভ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হচ্ছে৷ ভিসি ড. মোসলেহউদ্দিনকে অপসারণের দাবিতে আজ ও আগামীকাল মঙ্গলবার ক্যাম্পাসে অবস্থান ধর্মঘটের কর্মসূচি দিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষকরা৷ সিলেট শহর জুড়ে ড. জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী ড. ইয়াসমিন হককে নিয়ে পোস্টারিংয়ের ঘটনা আরো বিক্ষুব্ধ করেছে আন্দোলনরত শিক্ষকদের৷ অচলাবস্থা নিরসনে মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান ড. আসাদুজ্জামান গত শুক্রবার ঢাকায় ভিসিপন্থী শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক করেন৷ কয়েকদিনের মধ্যে আন্দোলনরত শিক্ষকদের সঙ্গেও তিনি বৈঠক করবেন বলে জানা গেছে৷

অচলাবস্থা নিরসনের দাবিতে আজ চ্যান্সেলর বরাবর স্মারকলিপি দিচ্ছেন অভিভাবকরা৷ এদিকে ভিসি ড. মোসলেহউদ্দিন এক প্রকার আত্মগোপনে রয়েছেন৷ গত এক সপ্তাহে একবার মাত্র তাকে ক্যাম্পাসে দেখা গেছে৷ তিনি ঢাকা আছেন, না তার বাড়ি মৌলভীবাজারে আছেন, তাও নিশ্চিত করতে পারছেন না ভিসিপন্থী শিক্ষকরা৷ তার মোবাইলে ফোন করেও তা বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে৷ শনিবার রাতে প্রগতিশীল শিক্ষকদের এক সভায় অবস্থান ধর্মঘটের কর্মসূচি নেয়া হয়৷ ভিসিকে অপসারণ না করায় ও ভিসিপন্থীদের তত্পরতায় প্রগতিশীল শিক্ষকদের মধ্যে বিরাজমান ক্ষোভে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে পোস্টারিংয়ের ঘটনা৷ আন্দোলনরত শিক্ষকরা দাবি করেছেন, ‘আমরা সচেতন সিলেটবাসী’র ব্যানারে সাঁটানো পোস্টারটি ভিসিপন্থীরাই পরিকল্পিতভাবে লাগিয়েছে৷ শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি ড. আখতারুল ইসলাম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, উপাচাের্যর যোগসাজশেই একটি মহল ড. জাফর ইকবালসহ সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে৷ পোস্টারে ড. জাফর ইকবালের বিরুদ্ধে কম্পিউটার ক্রয়ে ২০ লাখ টাকার ঘাপলার অভিযোগ আনা হয় এবং ড. ইয়াসমিন হক পদোন্নতি পাওয়ার অযোগ্য ও তিনি হাই কোের্ট মামলা করে সিলেটের সন্তান আবদুল হাইকে ভোগান্তিতে ফেলেছেন কেন বলে প্রশ্ন করা হয়৷ ইউনিভাির্সটির কয়েকজন সাংবাদিককে ড. জাফর ইকবালের মদদপুষ্ট বলে অভিহিত করা হয়েছে৷ এছাড়া ভিসির বাসভবন ভাংচুরের ঘটনা নিয়েও ড. জাফর ইকবাল ও ড. ইয়াসমিন হককে ইঙ্গিত করা হয়৷ এলাকাবাসী জানান, গত বৃহস্পতিবার রাতে অচেনা কিছু যুবক এসব পোস্টার লাগিয়েছে৷ ড. জাফর ইকবাল গতকাল বিকালে যায়যায়দিনকে এ প্রসঙ্গে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, পোস্টার সাঁটানোর কথা শুনেছি৷ নিজের ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, এসব একেবারে বাজে ব্যাপার৷ এ নিয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না৷ সঙ্কট নিরসনের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান ড. এম আসাদুজ্জামান গত শুক্রবার ঢাকায় ভিসিপন্থী শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক করেন৷ জানা গেছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই তিনি আন্দোলনরত শিক্ষকদের নিয়ে বৈঠক করবেন৷ এছাড়া তিনি আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আসবেন৷ জানা গেছে, ভিসিপন্থী শিক্ষকরা ইউজিসি চেয়ারম্যানের কাছে ভিসির বিভিন্ন দুর্নীতির বিষয়টি স্বীকার করেন৷ তবে বৈঠকে অংশ নেয়া ভিসিপন্থী শিক্ষক প্রক্টর ড. সাজেদুল করিম গতকাল যায়যায়দিনকে জানিয়েছেন, শিক্ষকরা ভিসির বিরুদ্ধে কোনো কথা বলেননি৷ অচলাবস্থা নিরসনের দাবিতে অ্যাডভোকেট আজিজুল মালিক চৌধুরীকে আহ্বায়ক করে একটি অভিভাবক কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সমন্বয়ে গঠিত এ কমিটির উদ্যোগে আজ সিলেটের ডিসির মাধ্যমে চ্যান্সেলর বরাবর স্মারকলিপি দেয়া হবে৷ গত শনিবার সন্ধ্যায় মদনমোহন কলেজের শিক্ষক মিলনায়তনে এ কমিটির সভা হয়৷ সভায় বক্তব্য রাখেন ড. কবির চৌধুরী, ব্রিগেডিয়ার (অব.) জুবায়ের সিদ্দিকী, মেজর (অব.) এম আতাউর রহমান পীর, ড. আবুল ফতেহ ফাত্তাহ, ড. তোফায়েল আহমদ, অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশরাফ হোসেন, সাংবাদিক আল আজাদ, ডা. রাশিদুল হাসান প্রমুখ৷

সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=11496&issue=76&nav_id=7

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: