সিলেটে চমক দেখাতে চায় এলডিপি

লিবারেল ডেমোত্রেক্রটিক পার্টি (এলডিপি) সিলেটে চমক দেখাতে চায়। খুব শিগগিরই তারা সিলেটে মহাসমাবেশ করে সেই চমক দেখাবে। এলডিপি সূত্র জানায়, সাবেক সাংসদসহ গুরুত্দ্বপহৃর্ণ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এলডিপিতে যোগদানের তালিকায় রয়েছেন। দু’পক্ষ থেকেই কথাবার্তা চলছে এবং ইতিমধ্যে তা অনেক দহৃর এগিয়েছেও। তবে এ মুহহৃর্তে তাদের নাম জানাতে আগ্রহী নয় এলডিপি।
অবশ্য সংশিল্গষদ্ব সহৃত্র জানিয়েছে, সিলেটে বিএনপির একাধিক সাবেক সাংসদসহ গুরুত্দ্বপহৃর্ণ নেতা ও বিপুল কর্মী-সমর্থক বিগত ৫ বছরে বিএনপির দুর্নীতি, লুটপাট এবং দলের শীর্ষ নেতাদের স্টৈ্বরতান্পিক মনোভাবের কারণে ক্ষুব্ধ। এই ক্ষুব্ধ নেতারা এলডিপিতে যোগদানের ব্যাপারে বিভিল্পম্ন পর্যায়ে কথাবার্তা বলছেন। অনেকের যোগদান এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। এ ব্যাপারে এলডিপির কেন্দ্রীয় নেতা ও সিলেট বিভাগের সমন্বয়ক সাবেক সাংসদ আবদুল মুকিত খান সমকালকে বলেন, সিলেটের একাধিক সাবেক সাংসদসহ শীর্ষস্ট্থানীয় অনেক নেতা এলডিপিতে যোগদানের আগ্রহ ইতিমধ্যেই ব্যক্ত করেছেন। তাদের অনেকের সঙ্গে কথাবার্তাও চহৃড়ানস্ন হয়েছে। এ মুহহৃর্তে এদের নাম জানাতে অনিচ্ছা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সিলেটে মহাসমাবেশ করে এলডিপি চমক দেখাবে।
গত মাসে এলডিপির আত্দ্মপ্রকাশের পরপরই সিলেটসহ দেশব্যাপী জোর গুঞ্জন ওঠে বিএনপির স্ট্থায়ী কমিটির সদস্য, সাবেক অর্থ ও পরিকল্কপ্পনামন্পী এম সাইফুর রহমান এলডিপিতে যোগ দিচ্ছেন। সিলেটে দলের তরুণ নেতা সাবেক সাংসদ এম ইলিয়াস আলীর সঙ্গে এম সাইফুর রহমানের চরম বিরোধকে কেন্দ্র করেই এ গুঞ্জন ওঠে। ওই সময় সংশিল্গষদ্বরা বলাবলি করেন, এম ইলিয়াস আলীর আচরণের ব্যাপারে সাইফুর রহমান বিএনপি হাইকমান্ডের কাছে বারবার অভিযোগ করলেও হাইকমান্ড কঠোর অবস্ট্থান নেয়নি। হাইকমান্ডের দু’কূল রক্ষার সিদব্দানস্নে এম সাইফুর রহমান খুশি নন মোটেই। বিশেষ করে ইলিয়াস আলী ইসু্যতে হাওয়া ভবনের ভহৃমিকায় সাইফুর রহমান বরাবরই ছিলেন অসন্তুষদ্ব। এছাড়া বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব তারেক রহমানের সঙ্গে দলের সিনিয়র নেতাদের মনস্টস্নাত্তি্বক যে লড়াই চলছে তাতেও সাইফুর রহমানের নাম উঠে আসে। অবশ্য এম সাইফুর রহমানের ঘনিষ্ঠরা শুরু থেকেই দাবি করে আসছেন, সাইফুর রহমানের এলডিপিতে যাওয়ার কোনো সল্ফ্ভাবনা নেই। এই গুঞ্জনের পাশাপাশি সিলেটে এলডিপিতে আর কারা যোগদান করতে পারেন এ নিয়ে সিলেটের রাজনৈতিক অঙ্গনে নানা জল্কপ্পনা-কল্কপ্পনা ও হিসাব-নিকাশ শুরু হয়।
অন্যদিকে এলডিপিও সিলেটে সংগঠিত হওয়ার জোর তৎপরতা শুরু করে। এলডিপির কেন্দ্রীয় নেতা ও সিলেট বিভাগের সমন্বয়কারী সাবেক সাংসদ আবদুল মুকিত খান সিলেট বিভাগে এলডিপিকে সংগঠিত করতে কাজ করছেন। আপাতত তিনি তার নির্বাচনী এলাকা দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জে প্রায় প্রতিদিনই সভা-সমাবেশ করছেন। এছাড়া তিনি সিলেটে এলডিপিতে যোগদান করতে পারেন এ রকম বিভিল্পম্ন পর্যায়ের নেতাকমর্ীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ ও মনিটরিং করছেন। সিলেটে বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত হলে দলের সাবেক ২ সাংসদ এলডিপিতে যোগদান করতে পারেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। এরা হলেন_ সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ) আসনের সাবেক সাংসদ শফি আহমদ চৌধুরী এবং সিলেট-৬ (গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার) আসনের সাবেক সাংসদ ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন। এই দুই নেতাই এম সাইফুর রহমানবিরোধী। তাদের দুু’জনের আসনেই বিএনপির একাধিক মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন। মনোনয়নপ্রত্যাশীর তালিকায় শফি আহমদ চৌধুরীর শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে রয়েছেন সাবেক অর্থ ও পরিকল্কপ্পনামন্পী এম সাইফুর রহমানের এপিএস কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা কাইয়ুম চৌধুরী এবং ড. সৈয়দ মকবুল হোসেনের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে রয়েছেন প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের চেয়ারম্যান ইনাম আহমদ চৌধুরী। এ কারণে বিএনপির ওই সাবেক দুই সাংসদের সঙ্গে এলডিপিও নানাভাবে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে শফি আহমদ চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তিনি বিএনপির আদর্শে রাজনীতি করেন। এলডিপিতে যাওয়ার প্রশম্নই ওঠে না। তবে এলডিপির পক্ষ থেকে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে বলে তিনি স্ট্বীকার করেন। এ ব্যাপারে বক্তব্য জানার জন্য ড. সৈয়দ মকবুল হোসেনের মোবাইল ফোনে বারবার যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এদিকে সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট আ ফ ম কামাল এবং সিলেটের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বাবরুল হোসেন বাবুলকেও দলে ভেড়াতে এলডিপি তৎপর রয়েছে বলে জানা গেছে।
সূত্রঃ http://www.shamokal.com/details.php?nid=42484

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: