সিলেটে বেপরোয়া শিবির নীরব দর্শক পুলিশ

সিলেটে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ছাত্রশিবির। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকমর্ীদের ওপর তারা হামলা চালাচ্ছে। প্রকাশ্যে দা, চাকু, রড নিয়ে তারা অতর্কিত হামলা করছে। গত ১৫ দিনে তারা ১৪ দলের ২৫/৩০ জন নেতাকর্মীকে দা ও চাকু নিয়ে হামলা চালিয়ে আহত করেছে। তাদের প্রায় ২৫টি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দিয়েছে ও ভাংচুর করেছে। আওয়ামী লীগের অফিসও তারা ভাংচুর করে। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে টেলিফোনে হত্যার হুমকি দিয়েছে শিবির ক্যাডাররা। এ তা-বে ছাত্রদলের কিছু ক্যাডার অংশ নিলেও মহৃল নেতৃত্বে আছে শিবির। এদিকে পুলিশও নীরব দর্শকের ভহৃমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ করছেন ১৪ দল নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন, অস্ট্পধারীদের গ্রেফতারে পুলিশ কোনো উদ্যোগ না নিয়ে পক্ষপাতমহৃলক আচরণ করছে।
জামায়াতে ইসলামীর নেতারাও ১৪ দলকে উদ্দেশ করে জনসভায় হুমকি দিয়েছেন, যে হাতে লগি-বৈঠা পাওয়া যাবে সে হাত ভেঙে দেওয়া হবে। বুধবার জামায়াত নেতাদের নির্দেশ পেয়েই শিবির ক্যাডাররা দক্ষিণ সুরমার চ-ীপুলে অবরোধকারী ১৪ দলের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলার পাশাপাশি জামায়াত শিবির মামলাও করেছে। ছাত্রশিবির সিলেট জেলা দক্ষিণের ভারপ্রাপ্টস্ন সভাপতি নাজমুল ইসলাম বাদী হয়ে গত ৩১ অক্টোবর কোতোয়ালি থানায় আওয়ামী লীগের দেড় শতাধিক নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা করেন।
এ ব্যাপারে সিটি মেয়র কামরান সমকালকে বলেন, ১৪ দলের শানস্নিপহৃর্ণ অবরোধে অস্ট্পধারীরা হামলা করেছে ১৪ দল জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাবে। কিন্তু সন্পাসীরা অস্ট্প দিয়ে সবকিছু দখল করতে চায়। মেয়র বলেন, অস্ট্পবাজদের এবার জনগণ উচিত শিক্ষা দেবে। সিলেটের পুলিশ প্রশাসন পক্ষপাতমহৃলক আচরণ করছে বলেও মেয়র অভিযোগ করেন।
জোট সরকারের বিদায়লগ্নে গত ২৮ অক্টোবর সিলেটে রাজপথ দখলের লড়াইয়ে নামে ১৪ দল ও ৪ দলীয় জোট। এদিন সকালে ৪ দলের ব্যানারে ছাত্রদল-ছাত্রশিবিরের কিছু নেতাকর্মী সিলেট নগরীর প্রাণকেন্দ্র কোর্ট পয়েন্ট দখল করে রাখে। পরে ১৪ দলের নেতাকর্মীরা ছাত্রদল ও ছাত্রশিবিরকে হটিয়ে দেয়। এসময় ১৪ দল নেতাকর্মীদের হামলায় মহানগর ছাত্রশিবিরের সভাপতি নুরুল ইসলাম বাবুলসহ জামায়াত-শিবিরের ২/৩ জন আহত হন। ১৪ দল নেতাকমর্ীরা শিবিরের ২টি মোটরসাইকেলেও অগি্নসংযোগ করে। এরপর থেকেই সিলেটে শিবির ক্যাডাররা বেপরোয়া হয়ে ওঠে। ছাত্রদলের হাতেগোনা কিছু ক্যাডারও তাদের সঙ্গে যোগ দেয়।

সূত্রঃ http://www.shamokal.com/archive.details.php?nd=2006-11-17&nid=42897

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: