সিলেটে চার দলের আসন বণ্টন চূড়ান্ত বিএনপি ১৭ জামায়াত ১ ইসলামী ঐক্যজোট ১

সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনে চারদলীয় জোটের শরীক দলগুলো আসন ভাগাভাগি মোটামুটি চূড়ান্ত করেছে৷ এর মধ্যে বিএনপির জন্য ১৭টি, জামায়াতের জন্য একটি ও ইসলামী ঐক্যজোটের জন্য একটি আসন বরাদ্দ রাখা হয়েছে৷ আসন ভাগাভাগি নিয়ে শরীক দলগুলোর মধ্যে কোনো বিরোধ নেই৷ একটি দায়িত্বশীল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে৷ এদিকে গত মঙ্গলবার বিএনপি পার্লামেন্টারি বোর্ড বিভাগের ১৭টি আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৪২ প্রার্থীর সাক্ষাত্কার নিয়েছে৷
সিলেট বিভাগের জেলাভিত্তিক আসনগুলো হচ্ছে সিলেট জেলায় ছয়টি, মৌলভীবাজারে চারটি, সুনামগঞ্জে পাচটি এবং হবিগঞ্জে চারটি৷ ২০০১ সালের নির্বাচনে সিলেট বিভাগে মোট ১৩টি আসন পায় চারদলীয় জোট৷ আর আওয়ামী লীগ পায় ছয়টি আসন৷ চার দলের প্রার্থীরা সিলেটের ছয়টি, মৌলভীবাজারের তিনটি এবং সুনামগঞ্জের চারটি আসন লাভ করেন৷
চার দলের শক্ত ঘাটি হিসেবে পরিচিত এ বিভাগে সম্ভাব্য প্রার্থীরা মাঠে-ময়দানে সরব রয়েছেন৷ জানা গেছে, আসন ভাগাভাগি নিয়ে শরীক দলগুলোর মধ্যে কোনো বিরোধ নেই৷ সিলেট-৫ আসনে (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) এবং সুনামগঞ্জ-৩ (দক্ষিণ সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর) আসন বাদে বাকি ১৭টি আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাক্ষাত্কার নেয়া হয়৷ এর মধ্যে পাচটি আসনে একজন করে প্রার্থী সাক্ষাত্কার দিয়েছেন৷ তারা হলেন সিলেট-১ আসনে (সিলেট সদর ও কোম্পানীগঞ্জ) দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমান, সিলেট-৪ আসনে (জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট) সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, মৌলভীবাজার-২ আসনে (কুলাউড়া-জুড়ী) সাবেক এমপি এম এম শাহীন, সুনামগঞ্জ-১ আসনে (তাহিরপুর-ধর্মপাশা-জামালগঞ্জ) সাবেক এমপি নজির হোসেন এবং সুনামগঞ্জ-২ আসনে (দিরাই-শাল্লা) সাবেক এমপি নাছির চৌধুরী৷ আজমিরিগঞ্জ ও বানিয়াচং উপজেলা নিয়ে গঠিত হবিগঞ্জ-১ আসনে সর্বোচ্চ ১০ জন প্রার্থী সাক্ষাত্কার দিয়েছেন৷ তারা হলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান নূরুল আমিন চৌধুরী, শেখ বশির আহমদ, আজিজুর রহমান সগিল, ওয়ারিজ উদ্দিন খান, গোলাম ফারুক, মনজুর উদ্দিন শাহীন, মুহিবুর রহমান সওদাগর, ডা. সাখাওয়াত হোসেন জীবন, মোশাররফ আহমদ ঠাকুর ও নাজনীন হোসেন৷ এছাড়া সিলেট-৩ আসনে (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ) সাবেক এমপি শফি আহমদ চৌধুরী, যুবদলের কেন্দ্রীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী ও যুবদল নেতা ইকবাল বাহার চৌধুরী, সিলেট-৬ আসনে (গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার) আসনে প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের চেয়ারম্যান ইনাম আহমদ চৌধুরী, সাবেক এমপি ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সভাপতি এমরান আহমদ চৌধুরী ও বৃটেন বিএনপির সভাপতি কমরউদ্দিন, সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সদর-বিশ্বম্ভরপুর) সাবেক হুইপ অ্যাডভোকেট ফজলুল হক আসপিয়া, নাদির আহমদ ও আমিরুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ-৫ আসনে (ছাতক-দোয়ারাবাজার) সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী ও আসাদ উদ্দিন, মৌলভীবাজার-৩ আসনে (সদর-রাজনগর) সাবেক এমপি এম নাসের রহমান ও মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক, মৌলভীবাজার-৪ আসনে (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) আবদুল আহাদ ও হাজী মুজিবুর রহমান মুজিব, হবিগঞ্জ-১ আসনে (নবীগঞ্জ-বাহুবল) শেখ সুজাত মিয়া ও শাহ মোসাদ্দেক হোসেন মিন্টু, হবিগঞ্জ-৩ আসনে (সদর-লাখাই) সাবেক এমপি আবু লেইছ মোহাম্মদ মবিন চৌধুরী, জিকে মৌলা ও চৌধুরী আশরাফুল বারী নোমান এবং হবিগঞ্জ-৪ আসনে (মাধবপুর-চুনারুঘাট) সাবেক প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়সল ও মিজানুর রহমান মিজান সাক্ষাত্কার দিয়েছেন৷
সূত্র জানায়, ১৭টি আসনে সব মিলিয়ে ৪৫টি ফরম বিক্রি হলেও শেষ সাক্ষাত্কারে উপস্থিত হন ৪২ প্রার্থী৷ মনোনয়ন লাভের আশায় সম্ভাব্য প্রার্থীরা রাজধানীতে এখনো অবস্থান করছেন৷ সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে লবিং করে তারা মনোনয়ন লাভের বিষয়টি নিশ্চিত করতে চাচ্ছেন৷
এছাড়া সিলেট-৫ আসনে (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) সাবেক এমপি ও জামায়াত নেতা পৃন্সিপাল মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী এবং সুনামগঞ্জ-৩ আসনে (দক্ষিণ সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর) ইসলামী ঐক্যজোটের প্রার্থী সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী লড়বেন৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=22208&issue=161&nav_id=7

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: